২য় ধাপে খাদ্য সামগ্রী ও নগদ আর্থিক সহয়তা প্রদান করেছে গ্রামীণ ব্যাংক সাপাহার এরিয়া।

সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর সাপাহার, পত্নীতলা, মহাদেবপুর, পোরশা এলাকার অতি দরিদ্র সদস্যদের মাঝে ২য় ধাপে খাদ্য সামগ্রী ও নগদ আর্থিক সহয়তা প্রদান করেছে গ্রামীণ ব্যাংক সাপাহার এরিয়া। মানবিক সহায়তা হিসাবে এ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২১ ই এপ্রিল) গ্রামীণ ব্যাংক এরিয়া অফিস সাপাহার এর আয়োজনে পত্নীতলা , হাতুড় মহাদেবপুর শাখা সহ এরিয়ার ১৩ টি শাখা কার্যালয়ে কর্ম এলাকার বিভিন্ন গ্রামের ১০০ জন অতি দরিদ্র সংগ্রামী সদস্যর ( ভিক্ষুক ) পরিবারের মাঝে প্রত্যেক কে চাল ৩০ কেজি, ডাল ৪ কেজি , আলু ৮ কেজি লবণ ২ কেজি , পেয়াজ ৪ কেজি , তেল ২ লিটার , সাবান ৪ টি সহ নগদ ৬ শত টাকা, মোট ৩ হাজার ২ শ টাকার ত্রাণ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। জানা যায় আগামী ঈদুল ফিতরের আগে আবারও খাদ্য সহায়তা দেওয়া হবে।

বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস মহামারী রূপ ধারণ করায় বাংলাদেশে এ ভাইরাসের সংক্রমণরোধে দেশের সকল সরকারি-বেসরকারি অফিস-আদালত, ব্যক্তি মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান, গণপরিবহন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এতে গরিব, দিনমজুর, নিম্ন আয়ের শ্রমজীবী মানুষ কর্মহীন হয়ে পরিবারের ভরন-পোষণ যোগাতে পারছে না। সব চেয়ে বেশী সংগ্রামী জীবনযাপনের মানুষ গুলো যারা মানুষের দ্বারে দ্বারে ভিক্ষা করে এ ধরনের মানুষের সাহায্যার্থে গ্রামীণ বাংকের এই উদ্যোগ ।

এরিয়া ম্যানেজার সেলিম পারভেজের নেতৃত্বে প্রোগ্রাম অফিসার আব্দুল জলিল, হাতুড় মহাদেব পুর শাখার শাখা ব্যবস্থাপক দুরুল হুদা , সে: অফিসার শাহিন হোসেন , শিরন্টি শাখার শাখা ব্যবস্থাপক নজরুল ইসলাম , তেতুলিয়া পোরশা শাখার ব্যব্স্থাপক জাহিদ হাসান , এরিয়া সভাপতি শয়ন তালুকদার , সাধারণ সম্পাদক ওয়াশিম আলী সরদার সহ এরিয়ার মোট ১৩ টি শাখার সহকর্মীরা বাড়ী বাড়ী গিয়ে এ ত্রাণ বিতরণ করেন ।

এরিয়া ম্যানাজার সেলিম পারভেজ বলেন মাঠ পর্যায়ে কিস্তি কালেকশন বন্ধ আছে তবে আমানত লেন দেনের জন্য স্বল্প আকারে ব্যাংকিং সেবা চালু আছে , এ সময় তিনি সকলকে ঘরে থাকতে, সাবান দিয়ে ঘন ঘন হাত ধুতে এবং সামাজিক দূরত্ব¡ বজায় রাখার জন্য পরামর্শ দেন , তিনি আরও বলেন আমরা আবার স্বাভাবিক জীবনে যেন ফিরে আসতে পারি প্রত্যেকে আমরা নিজ নিজ নিজ র্ধম বেশী বেশী পালন করবো সৃষ্টির্কতা আমাদের সবাইকে রক্ষা করুন।