১০০ বোতল ফেন্সিডিল বহনের সময় ট্রাকের সাথে ধাক্কায় ২ মাদক ব্যবসায়ী আহত

মাদক ব্যবসায়ী

মাদক ব্যবসায়ী

দৌলতপুর প্রতিনিধি : কুষ্টিয়া দৌলতপুর উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের মথুরাপুর বাজারের রড ব্যবসায়ী কেয়ামত আলীর রাস্তার উপরে রাখা ট্রাকে পিছন থেকে ধাক্কা মেরে ১০০ বোতল ফেন্সিডিল সহ পড়ে গিয়ে ২ মাদক ব্যবসায়ী আহত হয়েছে। উদ্ধার কারী এলাকাবাসী ও জন প্রতিনিধিরা জানান প্রায় ২০ দিন যাবত ট্রাকটি ঐ স্থানে রাখা, রড ব্যবসায়ী প্রভাবশালী হওয়ায় মানুষকে কিছু মনে করেন না,দীর্ঘ দিন ধরে তাকে বললেও কোন কর্ণপাত করেন না।

তারা এক পাশে রড ও এক পাশে ট্রাক রেখে প্রায় সময় রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। ২৭ নভেম্বর বুধবার ভোর রাতে অনেক কুয়াশা ছিল হঠাৎ বিকট শব্দ শুনতে পাই , দৌড়ে এসে দেখে ২ জন ব্যক্তি ট্রাকের নিচে মটর সাইকেল নিয়ে ঢুকে গেছে। আর এক জন একটি পালসার গাড়ি রেখে তাদের উদ্ধারের চেষ্টা করছে। এ অবস্থায় স্থানীয় পুলিশ ক্যাম্পে জানালে ক্যাম্প ইনচার্জ এ.এস.আই আরিফ রহমান এলাকাবাসীর সহযোগিতায় তাদের উদ্ধার করে।

উদ্ধার করার সময় তাদের শরীর ও পাশে পড়ে থাকা ব্যাগ থেকে ১০০ বতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করে, একাধিক এলাকাবাসী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন, ১০০ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার হয়েছে ঘটনা স্থান থেকে। এ বিষয়ে মথুরাপুর ক্যাম্প ইনচার্জ আরিফুর রহমান ফেন্সিডিলের বিষয়টি দ্বিমত পোষন করেন, তবে একটি পালসার ও একটি ইয়ামাহা গাড়ি সহ ৩ জন কে আটক করা হয়েছে, তাদের মধ্যে ২ জনকে ট্রাকের সাথে ধাক্কা মারায় আহত হলে এবং অবস্থা আশংকাজন হওয়াতে দৌলতপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ।

আটককৃত তিন জনই পাবনা জেলার ঈশ্বরদী থানার রাধানগর গ্রামের আমজাদ হোসেনের ছেলে ইমরান হোসেন(৩২), পাবনা সদর থানার আটিয়া খাতা গ্রামের আব্দুলা­হ শেখের ছেলে আসিক (২৫) ও আখড়াপাড়া গ্রামের সাইদুলের ছেলে বিপুল (১৯)। এ বিষয়ে ওসি তদন্ত জানান ২টি মটর সাইকেল, ৩৩ বোতল ফেন্সিডিল সহ তাদেরকে আটক করা হয়েছে, এ বিষয়ে মামলা হয়েছে।