স্বামী-স্ত্রীর ফাঁসির আদেশ, একজনের যাবজীব্বন কারাদন্ড।


ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বাঞ্ছারামপুরে শুকুর মিয়া নামে এক ব্যক্তিকে বাড়ি থেকে ডেকে এনে হত্যার ঘটনায় স্বামী – স্ত্রীকে ফাঁসি ও একজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। এ ঘটনায় ৩৯ জনকে বেকসুর খালাস দেন আদালত। বুধবার দুপুরে অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালতের বিচারক সাবেরা সুলতানা খানম এ আদেশ প্রদান করেন।

নিহত শুকুর মিয়ার বাড়ি নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ উপজেলার খাদল গ্রামে। ফাঁসির আদেশ প্রাপ্তরা হলেন রুপগঞ্জের হেলেনা বেগম ও তার স্বামী আফজাল মিয়া। এ ঘটনায় আফজাল মিয়ার বাবা আমির উদ্দিনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রাপ্ত দেয়া হয়। বেকসুর খালাস পান সুমন ও ওমর ফারুক। উল্লেখ্য, ৫ লাখ টাকা নিয়ে জমি রেজিস্ট্রি করে দেয়ার কথা বলে রুপগঞ্জের আমির উদ্দিন শুকুর মিয়াকে বাঞ্ছারামপুরের মরিচাকান্দিতে নিয়ে আসে।

পরে ২০১২ সালের ৬ ডিসেম্বর বাঞ্ছারামপুরের মরিচাকান্দি এলাকায় মেঘনা নদীর তীরে হত্যা করে ফেলে যায়। এ ঘটনায় হেলেনা বেগম আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করে। দীর্ঘ তদন্ত শেষে পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে চার্জশিট প্রদান করেন। দীর্ঘ শুনানি শেষে এবং সাক্ষী যাচাই-বাছাইয়ের পর বিজ্ঞ আদালত এ রায় প্রদান করেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে আশিকুর রহমান রনি।