সৈয়দপুরে নিখোঁজের ৩ দিন পর মাইক্রোসহ চালক উদ্ধার, গ্রাম পুলিশ আটক।

নীলফামারী প্রতিনিধি: নীলফামারীর সৈয়দপুরে ইউপি পরিষদ চত্বর হতে নিখোজের তিন দিন পর পুলিশ মাইক্রোবাসসহ এক চালককে উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় দুইজন গ্রাম পুলিশকে আটক করা হয়েছে। উদ্ধার মাইক্রোবাস মালিক ও চালক রেহাউল ককরিম (৩২) গাজীপুরের কাপাসিয়ার ফুলবাড়িয়া গ্রামের সুবেদ আলীর পুত্র বলে জানা গেছে।

আজ ৯ মে, উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়ন পরিষদ চত্বর হতে ওই চালককে উদ্ধার করা হয়। পুলিশ সুত্রে জানা যায়, গত ৬ এপ্রিল ওই চালক তার মাইক্রো নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে যাচ্ছিলেন। পথের মধ্যে কামারপুকুর ইউপি পরিষদ চত্বর সংলগ্ন রংপুর- সৈয়দপুর বাইপাস সড়কে দুর্ঘটনা ঘটে। এতে ওই এলাকার এক যুবক আহত হয়। আহত যুবককে মাইক্রো ড্রাইভার তাৎক্ষনিকভাবে অন্য একটি মাইক্রোতে করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন।

কিন্তু দুর্ঘটনাস্থল হতে মাইক্রোবাস ভাংচুর করে দুই গ্রাম পুলিশ চালককে আটকে রাখে। পরে তার কাছ থেকে ১ লাখ টাকা দাবি করা হয় তা না হলে তাকে ছাড়বে না সাফ জানিয়ে দেয়া হয়। এদিকে গোপনে খবর পেয়ে সৈয়দপুর থানা পুলিশ আটকে রাখা চালকসহ মাইক্রোবাস উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে এবং দুই জন গ্রাম পুলিশকে আটক করে। এ ব্যাপারে সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ বলেন, মাইক্রোসহ গাজীপুরের ওই চালককে জীম্মি থাকা অবস্থায় আজ কামামপুকুর ইউপি পরিষদ চত্বর হতে উদ্ধার করা হয়। এ বিষয়ে একটি অপহরণ অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

সৈয়দপুরে মাইক্রোচালককে আটকে চাঁদা দাবিতে মামলা ইউপি চেয়ারম্যান লাপাত্তা \ দুই গ্রামপুলিশ আটক।