সার্ভেয়ার মান্নানের অবহেলায় মারা গেলেন নারী শ্রমিক

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়া শহরের বাড়াদি মন্ডল পাড়ায় এক মুরগরী খামারের ঘড়ের বাইরে দিয়ে অবৈধভাবে পেতে রাখা ইলেকট্রিক তারে জড়িয়ে নূরজাহান (৩৫)নামে এক নারী শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ওই নারী শ্রমিক একই এলাকার আবেদ আলীর মেয়ে। স্থানীয়রা জানান,কুষ্টিয়া পৌরসভার সার্ভেয়ার মান্নান ও তার বন্ধু হেলাল। বিগত ১০-১২ বছর ধরে এখানে মুরগীর খামার করে ব্যবসা করে আসছেন।

এই মুরগী খামারের আড়ালে মাদকের স্বগরাজ্য গড়ে তুলেছেন সার্ভেয়ার মান্নান। খামারটির সীমানা ঘিরে ইলেকট্রিক তার দিয়ে মোড়ানো থাকে। প্রতি রাতেই খামারের চারিদিকে অবৈধভাবে বিদ্যুতের সংযোগ দিয়ে রাখা হয় এখানে। এ নিয়ে এলাকাবাসী অভিযোগ করলেও সার্ভেয়ার মান্নান ক্ষমতাবান হওয়ায় তা কানে তোলেনি তিনি। সার্ভেয়ার মান্নানের অবহেলায় এই নারী শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। গতকাল রাতেও একইভাবে বিদ্যুতের লাইন দেওয়া ছিল সীমানা ঘিরে। আজ মঙ্গলবার সকাল ১০ টার দিকে খামারে নারী শ্রমিক নূরজাহান প্রবেশের সময় ওই তারে জড়িয়ে মর্মান্তিকভাবে মৃত্যুবরণ করে সে।

এ বিষয়ে কুষ্টিয়া পৌরসভার সার্ভেয়ার মান্নানের সঙ্গে মুঠোই ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি কলটি রিসিভ করেননি। কুষ্টিয়া মডেল থানার সাব ইন্সপেক্টার লিপন সরকার জানান,খামারটির মালিক কুষ্টিয়া পৌরসভার সার্ভেয়ার মান্নান। এটি পরিচালনা করে তার বন্ধু হেলাল। আমরা দেখেছি অবৈধভাবে বিদ্যুতের সংযোগ নেওয়া হয়েছে এখানে। কুষ্টিয়া মডেল থানার (ওসি) মো.কামরুজ্জামান এঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,পুলিশ গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করেছে।

নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এদিকে কুষ্টিয়া পৌরসভার সার্ভেয়ার মান্নানের বিরুদ্ধে নানান অপর্কমের অভিযোগ রয়েছে। পৌর সভার সার্ভেয়ার হওয়ায় নামে বেনামে গড়েছেন অবৈধ সম্পদ। কুষ্টিয়া এবং ঢাকা মিলিয়ে স্থাবর অস্থাবর সম্পদ রয়েছে প্রায় ৫০ কোটি টাকার। তার এই অবৈধ সম্পদের ব্যাপারে তদন্তের দাবি জানান পৌরসভাবাসী।