যুবলীগ সভাপতি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে প্রাথমিক শিক্ষকদের অভিযোগ।

দশমিনা উপজেলা প্রতিনিধি: পটুয়াখালী জেলার দশমিনা উপজেলায় দশমিনা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন পালোয়ান এর বিরুদ্ধে দশমিনা উপজেলার ৩২ প্রাথমিক শিক্ষকের অভিযোগ অফিসার ইনচার্জ দশমিনা থানা বরাবর। লিখিত অভিযোগে বলা হয় দশমিনা উপজেলায়ন তৃতীয় ধাপে ১৪টি সদ্য জাতীয় করন প্রাথমিক বিদ্যালয়য়ের গেজেট প্রকাশিত হওয়ার পর শিক্ষকদের বিল করার জন্য প্রতি শিক্ষকের কাছ থেকে ২লক্ষ করে টাকা দাবিকরে।

কিন্তু ১৪টি স্কুলের ৫৩জন শিক্ষক তার কথায় রাজি না হওয়ায় তাদের বিভিন্ন ভাবে নিজে এবং অপরিচিতদের দিয়ে হুমকি ধামকি অভ্যহত রাখে। এই ঘটনায় চাকরির নিশ্চয়তা ও জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে গত ১১জুন ৩২জন শিক্ষক দশমিনা থানায় উপস্থি হয়ে অফিসার ইনচার্জ দশমিনা থানা বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ আনায়ন করেন। দশমিনা উপজেলার ১৪৩নং চরশাহজালাল আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল হোসেন জানান,দশমিনা অফিসার ইনচার্জ আমাদের অভিযোগটি পেয়ে নথিভূক্ত না করে গরিমশি করছে।

দশমিনা থানায় অভিযোগ দায়েরের পর থেকে ভাইস চেয়ারম্যান এবং তার বাহিনী ঔই অভিযোগ প্রত্যহার না করলে শারিরীক নির্যাতন ও চাকুরীচ্যুত করার হুমকি দিচ্ছে। সদ্য জাতীয় করনকৃত শিক্ষক মমিতির সভাপতি আবদুর রহমান জানান,মাননীয় প্রধান মন্ত্রী আমাদের জাতীয় করন করেছেন আমরা কৃতঞ্জ মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর কছে। দশমিনা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসির পালোয়ান এর অবৈধ প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় আমাদের শিক্ষকদের বিভিন্ন ভাবে নিজে এবং তার বাহিনী কতৃক হুমকি ধামকি দিচ্ছে আমদের নিরাপত্তার জন্য আমরা আইনের সহায্য গ্রহন করেছি।

অফিসার ইনচার্জ এস এম জালাল উদ্দিন জানান,দশমিনা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষকদের অভিযোগ পেয়েছি এখনো নথিভূক্ত হয়নি । এস আই আঃওহাব সরকারকে অভিযোগটি তদন্তের জন্য দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। অভিযোগ সংক্রান্ত বিষয়ে ভাইস চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন পালোয়ান বলেন শিক্ষকদের দায়ের করা অভিযোগ মিথ্য ,বানোয়াট
ও ভিত্তিহীন।