ময়মনসিংহে পুলিশ প্রশাসন, ২শ হতদরিদ্র মানুষের হাতে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন।

অসহায় ও হতদরিদ্র মানুষের হাতে ত্রাণ সামগ্রী তুলে দিলেন ময়মনসিংহ রেঞ্জ ডিআইজি ব্যারিস্টার মোঃ হারুন অর রশিদ (বিপিএম-সেবা) ও ময়মনসিংহ পুলিশ সুপার মোহাঃ আহমার উজ্জামান (পিপিএম-সেবা)।

গোলাম কিবরিয়া পলাশ ময়মনসিংহ জেলা প্রতিনিধি: সাধারন খেটে খাওয়া অসহায় ও হতদরিদ্র মানুষের হাতে ত্রাণ সামগ্রী তুলে দিলেন ময়মনসিংহ রেঞ্জ ডিআইজি ব্যারিস্টার মোঃ হারুন অর রশিদ (বিপিএম-সেবা) ও ময়মনসিংহ পুলিশ সুপার মোহাঃ আহমার উজ্জামান (পিপিএম-সেবা)। আজ ১লা এপ্রিল ২০২০ইং রোজঃ বুধবার বিকালে ময়মনসিংহ নগরের জুবলীঘাট এলাকায় বিপিন পার্কের নিচে ব্রক্ষ্মপুত্র নদের ধারে গরীব, অসহায় ও নিম্নবিত্ত অনাহারে থাকা মানুষগুলোর হাতে খাদ্য সমগ্রী তুলে দেওয়া হয়।

গত ক’দিন ধরেই ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ অসহায় মানুষদের খাদ্য সামগ্রী সহায়তা দিয়ে আসছেন। করোনা প্রতিরোধে সরকার সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেন। গুটা বিশ্বে আজ প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের সংক্রমনে মৃত্যু পুরী হয়ে যাচ্ছে। এর জেরে চলছে ময়মনসিংহে লকডাউন। আর এই পরিস্থিতিতে খাবার না পাওয়া খেটে খাওয়া অসহায় ও অনাহারে থাকা অবস্থায় দিন কাটাচ্ছে নগরীর নিন্মবিত্তের জীবন যাপনের মানুষজন। আজ কর্মহীনতায় মানবেতর জীবনযাপন করছে।

ময়মনসিংহের নগরীতে করোনা ভাইরাস আতঙ্কে বিত্তবানসহ অসহায় ও নিম্নবিত্ত মানুষগুলো এখন সামাজিক দূরত্ব ও জনসচেতনতার জন্য গৃহবন্দী হয়ে পড়েছে। আজ বড় কষ্টে কাটছে তাদের দিন ও সংসার। আজ সারাদেশে বেড়েছে খাদ্যের সংকট। চলছে মানবেতর জীবনযাপন। অনেকটা অনাহারে কাটছে তাদের জীবন। “করোনা ভাইরাস” নামক মহামারীর দুর্যোগ মুহুর্তে অনাহারী মানুষগুলোর পাশে ছুটে এলেন ময়মনসিংহ রেঞ্জ ডিআইডি ব্যারিস্টার মোঃ হারুন অর রশিদ ও ময়মনসিংহ পুলিশ সুপার মোহাঃ আহমার উজ্জামান।

আজ ১লা এপ্রিল রোজঃ বুধবার ময়মনসিংহের ঐতিহ্যবাহী যুবলীঘাট সংলগ্ন বিপিন পার্কে ব্রক্ষ্মপুত্র নদের ধারে খেটে খাওয়া গরীব, অসহায় ও নিম্নবিত্ত অনাহারে থাকা মানুষগুলোর হাতে প্রত্যককে ৫ কেজি চাল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি ডাল, ৫০০ গ্রাম তেল ও ৫০০ গ্রাম লবণ তুলে দেওয়া হয়। জানতে পারি ২০০ জন গরীব, অসহায় ও নিম্নবিত্ত মানুষদের মাঝে খাদ্য সমগ্রী বিতরণ করা হয়।

ত্রাণসমগ্রী বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন, ময়মনসিংহ রেঞ্জ ডিআইডি ব্যারিস্টার মোঃ হারুন অর রশিদ ও ময়মনসিংহ পুলিশ সুপার মোহাঃ আহমার উজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হুমায়ন কবীর (ডিএসবি), কোতোয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মাহমুদুল ইসলাম (পিপিএম), জেলা গোয়েন্দা সংস্থার অফিসার ইনচার্জ শাহ মোঃ কামাল আকন্দ (পিপিএম-বার), ট্রাফিক ইন্সপেক্টও (প্রশাসন) সৈয়দ মাহবুবুর রহমানসহ ময়মনসিংহ জেলা পুলিশের কর্মকর্তাগণ।