বিশ্ব মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে হিওম্যান রাইটস রিভিও সোসাইটির পক্ষ থেকে শান্তি পদক পেলেন স্বপ্নছায়ে সেচ্ছাসেবী সংগঠন।

স্বপ্নছায়া সেচ্ছাসেবী সংগঠনের পক্ষ থেকে এ্যাওয়ার্ড গ্রহণ করেন কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি তাশফীন আব্দুল্লাহ্।
ছবি: স্বপ্নছায়া সেচ্ছাসেবী সংগঠনের পক্ষ থেকে এ্যাওয়ার্ড গ্রহণ করেন কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি তাশফীন আব্দুল্লাহ্।

স্বপ্নছায়া সেচ্ছাসেবী সংগঠনের পক্ষ থেকে এ্যাওয়ার্ড গ্রহণ করেন কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি তাশফীন আব্দুল্লাহ্। বিশ্ব মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন কুষ্টিয়া কমিটির উদ্যোগে ১০ ডিসেম্বর কুষ্টিয়া মানবাধিকার সংগঠনের পক্ষ থেকে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়।

১০ই ডিসেম্বর বিশ্ব মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে হিওম্যান রাইটস রিভিও সোসাইটির পক্ষ থেকে ডেঙ্গু মশক নিধন,আক্রান্ত রুগি ও পরিবারের থেকে বিশেষ অবদান রাখার জন্য আড়িয়া ইউনিয়ন স্বপছায়া সেচ্ছাসেবী সংগঠনকে হিওম্যান রাইটস রিভিও সোসাইটির পক্ষ থেকে এ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়।

ডেঙ্গু রোগের এই সংকট মই মূহুর্তে ২৪ ঘন্টা ব্যাপি ওয়ানষ্টপ সার্ভিসের মাধ্যমে সেবা প্রদানের বিষয়ে এবং সার্বিক বিষয়ে উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন স্বপ্নছায়া সেচ্ছাসেবী সংগঠন এবং এই কাজে সব সময়ের জন্য সহযগিতা করেন সাঈদ আনছারী বিপ্লব চেয়ারম্যান। আড়িয়া ইউনিয়ন এর সুযোগ্য চেয়ারম্যানের তারই ছোট ভাই এই সেচ্ছাসেবী সংগঠনকে পরিচালনা করেন কুষ্টিয়া জেলা ছাএলীগের সহ-সভাপতি তাশফীন আব্দুল্লাহ্ মানবাধিকার সংস্থায় প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই যে আমাদের স্বপ্নছায়া সংগঠনের এ স্বীকৃতি দেওয়া ও এ্যাওয়াড পাওয়ার জন্য সংগগঠনের ছেলেরা ভালো কাজে মানুষের পাসে দাঁড়াতে হবে।

কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর উপজেলার চকঘোকা গ্রামে ঘখন ডেঙ্গু আএান্ত কারি রোগীদের সেবায় স্বপ্নছায়া সেচ্ছাসেবী সংগঠন প্রতি নিয়ত সেবা দিয়ে গেছে ডেঙ্গু রেগীদের। কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর উপজেলার আড়িয়া ইউনিয়ন ছাতারপাড়া, খলিসাকুন্ডি ইউনিয়নে স্বপ্ন ছায়া সেচ্ছাসেবী সংগঠন দিন ভর কাজ করেছেন। তারা ৩০-৩৫ দিন ধরে প্রতিটা এলাকাই ডেঙ্গু নিয়ে সচেতন মূলক লিফলেট, ও প্রত্যেক বিদ্যালয়ে লিফেলেট বিতরন করেছিল, এবং প্রতিটা এলাকায় পরিস্কার পরিচ্ছান্নতা মূলতক কর্মকান্ড করে ছিলেন।

এর মধ্যে আড়িয়া ইউনিয়নের ছাতারপাড়া ও খলিসাকুন্ডি ইউনিউনের সব চেয়ে বেশি রোগী দেখা দিয়ে ছিলো সেটি কমিয়ে এনে ছিলেন স্বপ্নছায়া সেচ্ছাসেবী সংগঠন। স্বপ্নছায়া সেচ্ছাসেবী সংগঠন আড়িয়া ইউনিয়নের ছাতারপাড়া গ্রামের দাঁড়পাড়া, লালনগর ইফসুফপুর এবং খলিসাকুন্ডির শ্যামনগর, নজীবপুর, রওশানপুরে মশকনিধন কাজ করছেন স্বপ্নছায়া সেচ্ছাসেবী সংগঠন।

স্বপ্নছায়া সেচ্ছাসেবী সংগঠন নামে একটি সংগঠন এই সংগঠনের প্রায় ৪০ জন সদস্য গ্রামে গ্রামে ঘুরে মশক নিধন ওষুধ ছিটানোসহ সচেতন মৃলত যা যা দরকার ছিলো সেই সব কাজ করেছেন। এই সংগঠন পরিচালনা করে কুষ্টিয়া জেলা ছাএলীগের সহ-সভাপতি তাশফীন আব্দুল্লাহ্। তার কাছে এই সংগঠনের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমাদের আড়িয়া ও খলিসাকুন্ডি এই দুই ইউনিয়নের প্রতিটি গ্রামেই ছুটে গিয়েছি আমরা মকশনিধন ও সচেতন মৃলক লিফলেট বিতরন করেছি এবং এই দুই ইউনিউনের প্রতিটা বিদ্যালয়ের মকশনিধন ও সচেতন মৃলক লিফলেট আমরা বিতরত করেছি।

এবং তিনি আরো বলেন যাদের পরিবারের ডেঙ্গু রোগ হয়ে ছিলেন তাদের প্রতিটা বাড়ির জন্য মশকনিধন কয়েল, মশারি, ধুপ, আগরবাতি, খারার স্যালাইন, খাবার ওধুষ প্রতিনিয়ত দেয়া হয়েছিলো। স্বপ্নছায়া সেচ্ছাসেবী সংগঠনের আক্লান্ত পরিশ্রমেন ফলে এলাকার মৃত্যুর ঝুঁকি অনেক কমানো সম্ভব হয়েছিলো বলে তিনি জানান। স্বপ্নছায়া সেচ্ছাসেবী সংগঠনের অনেক পরিশ্রমের মাধ্যমে সাধারন মানুষের জিবন রক্ষা পেয়েছিলো ডেঙ্গুর হাত থেকে।

এবং র্সব শেষে আড়িয়া ইউনিউনের পরিষদের চেয়ারম্যার সাঈদ আনসারী বলেন মশকনিধনের কোনো কাজই আমি ঘাটতি রাখতে দিতে দেয়নি। এবং তিনি আরো বলেন এই স্বপ্নছায়া সেচ্ছাসেবী সংগঠন একদিন বাংলাদেশের মানচিএে স্বর্ণাক্ষরে নাম লিখাবে।