বরগুনায় অস্ত্র, গুলিসহ দুই জলদস্যু আটক

জেলা প্রতিনিধি বরগুনা: জেলার পাথরঘাটা উপজেলার পর্যটন কেন্দ্র হরিণঘাটার পাঁচতলা ওয়াচ টাওয়ারের নিচ থেকে রাত সাড়ে ৯টার দিকে আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলিসহ দুই জলদস্যুকে আটক করেছে কোস্টগার্ড। আটক দস্যুরা হলো পাথরঘাটা উপজেলার কালমেঘা ইউনিয়নের ঘুটাবাছা গ্রামের মো. মহাসিনের ছেলে মো. রিয়াজ (২৩) ও একই এলাকার আব্দুল মন্নানের ছেলে মো. রাজু (২৫)।

কোস্টগার্ডেও পাথরঘাটা স্টেশন কমান্ডার লে. মেহেদি হাসান জানিয়েছেন, হরিণঘাটা বনে জলদস্যুরা সাগরে ডাকাতি করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোস্টগার্ডের একটি দল গত রাতে ওই এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় দস্যুরা কোস্টগার্ডকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। কোস্টগার্ডও পাল্টা গুলি করে। একপর্যায়ে পালানোর সময় কোস্টগার্ড দুজনকে আটক করতে সক্ষম হয়।

বাকি ৮ থেকে ১০ জন জলদস্যু পালিয়ে যায়।এসময় কোস্টগার্ড সদস্যরা ৪টি একনলা বন্দুক,৬রাউন্ড গুলি ও ২২টি ধারালো ছোড়া উদ্ধার করে। বরগুনা জেলা ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী জানান, ২৩ জুলাই রাত থেকে সাগরে মাছ ধরার ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষ হবে। সংঘবদ্ধ জলদস্যুরা ডাকাতি করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে।

তারা ধারনা করছেন, আটক হওয়া ব্যক্তিরা তালতলী উপজেলার বগা এলাকার রিপন বাহিনীর সদস্য। আটক জলদস্যুদের পাথরঘাটা থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। কোস্টগার্ড বাদি হয়ে মামলা করেছে বলে থানা সূত্র জানিয়েছে।