পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ১৪ মামলার আসামি শহিদুল নিহত


দৌলতপুর প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে পুলিশের গুলিতে ১৪ মামলার আসামি শহিদুল নিহত হয়েছে ঘটনাস্থল থেকে  অস্ত্র গুলি ও  মাদক উদ্ধার করেছে দৌলতপুর থানা পুলিশ।  নিহত শহিদুল উপজেলার সীমান্তবর্তী জামালপুর গ্রামের মোঃ মানিকের ছেলে।

দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম আরিফুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি উপজেলার বাগোয়ান গ্রামের একটি পান বরজের পাশে দুইদল মাদক ব্যবসায়ী মাদক কেনা বেচা করছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার ভোরে দৌলতপুর থানা পুলিশের একটি দল সেখানে অভিযানে যায়।পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ে।

আত্মরক্ষার্থে পুলিশ পাল্টা গুলি চালালে মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় শহিদুলকে উদ্ধার করে দৌলতপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শহিদুলকে মৃত ঘোষণা করে। নিহত শহিদুলের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।