নোয়াখালীতে নিজ অর্থায়নে কৃষকের ধান কেটে দিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান ত্রকে ত্রম সামসুদ্দিন জেহান।

নোয়াখালী প্রতিনিধি: নোয়াখালী সদর উপজেলার অসহায় দরিদ্র কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিয়েছেন সদর উপজেলা পরিষধের চেয়ারম্যান ত্রকে ,ত্রম সামসুদ্দিন জেহান। আজ বৃহস্পতিবার ৭ইমে সকালে উপজেলার ৬ নং নোয়াখালী ইউনিয়ন ,কাদির হানিফ ,ও দাদপুর সহ তিন টি ইউনিয়নের কৃষকদের প্রায় ১০ ত্রকর জমির পাকা ধান সম্পুর্ন নিজ অর্থায়নে লেবার দিয়ে কেটে দেওয়া হযেছে।

সকাল থেকে দুপুর পযন্ত ত্রই ধান কাটা হয় ত্রবং লেবার ঠিকমত মাঠে ধান কাটছেন কিনা ,কৃষকদের অন্য কোন সমস্য আছে কিনা ,তা দেখার জন্য উপজেলা চেয়ারম্যান নিজেই ৬ নং ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডে নোয়াখালী মৌজা সর জমিনে পরিদর্শন করেন ত্রই সময় সাথে ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান নাসির উপস্তিত ছিলেন।

কৃষক নিজাম উদ্দিন জানান, আমি ২ ত্রকর জমিতে ধান চাষ করি ধান পাকলে ও টাকার অভাবে ক্ষেত থেকে ধান কাটতে পারছি না ত্রমন সময় আমাদের উপজেলা চেয়ারম্যান তার ব্যাক্তি গত পেইস বুক আইডি থেকে মোবাইল নাম্বার দিয়ে বলেছেন সদর উপজেলায় কৃষকদের ধান কাটা নিয়ে কোন সমস্যা থাকলে ত্রই নাম্বারে যোগাযোগ করার জন্য তখন কৃষক ফকরুল কৃষক নিজামের ধান কাটার সমস্যার কথা বলে ঐ নাম্বারে ফোন করলে তাৎক্ষনিক চেয়ারম্যান নিজের উদ্যোগে লেবার দিয়ে তার ধান কেটে ঘরে তুলে দেওয়ার ব্যাবস্তা করেন।

ত্রই বিষয়ে সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ত্রকে ,ত্রম সামসুদ্দিন জেহান বলেন, দেশে চলমান করোনা ভাইরাসের সংক্রমনের কারনে চলতি মৌসমে কৃষকরা ক্ষেতে ধান পাকলে ও তা অনেক কৃষক টাকার অভাবে ধান কাটতে পারছে না ত্রমন অবস্তায় আমি পেইস বুকে মোবাইল নাম্বার দেওয়ার পর যারা যারা আমার সাতে যোগাযোগ করেছে তাদের প্রত্যোক কে আমি আমার নিজ খরছে লেবার দিয়ে ধান কেটে ঘরে পৌছে দিয়েছি ত্রবং শুধু ধান কাটা নয় ত্রই উপজেলায় যে কোন লোকের যে কোন সমস্যা সরাসরি আমাকে জানালে আমি সেই বিষয়ে সাতে সাতে প্রয়োজনিয় ব্যাবস্তা গ্রহন করবো। আমার ত্রই পকৃয়া চলমান সদর উপজেলার সর্বস্তরের মানুষের জন্য চলমান থাকবে ।