নেকমরদ চৌরাস্তাটিতে অবৈধ ভাবে ইজিবাইক যানজটের পারাপার।


ঠাকুরগাঁও রানীশংকৈল প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁও রানীশংকৈল নেকমরদ চৌরাস্তাটিতে ইজি বাইক ও ব্যাটারিচালিত গারি গুলোর কারনে অবৈধ ভাবে যানবাহনের পারাপার চলছে । নেকমরদ থেকে বালিয়াডাঙ্গী পর্যন্ত রাস্তাটি প্রায় দুরত্ব ১২ কিলোমিটার এতে করে যাতায়াত করে এক হাজারের অধিক মানুষ এই রাস্তাটিতে প্রায় একহাজারের অধিক ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা, অটো চার্জার ভ্যান মোটরবাইক বাইসাইকেল বাস-ট্রাক ইত্যাদি চলাচল করে।

যার কারনে সব সময় যানজট জ্যাম লেগেই থাকে শুধু তাই নয় প্রশাসনের অগোচরে অল্প বয়সের ছেলেদের দিয়ে চালানো হচ্ছে অটোরিকশা,অটো ভ্যান যাদের কোন গাড়ী চালানোর কোন প্রশিক্ষণ বা টেরিং পাপ্ত না এতে করে ঘটতে পারে যে কোন সময় দূর্ঘটন । এ বিষয়ে চেন মাস্টার ইমরান এর সঙ্গে কথা বললে তিনি বলেন যানজট জ্যাম লেগে থাকলে আমরা কি করব অতিরিক্ত পাগলু চার্জার ভ্যান চার্জার গাড়ি হওয়ার কারণে এসব সমস্যা সৃষ্টি হয় , সরকার কিংবা প্রশাসন যদি কোন নির্দিষ্ট একটা জায়গা দেয় এসব গাড়ি পারাপার করার জন্য তাহলে সুবিধা হয় ।

এদিকে চার্জার ভ্যান চালক দুলালের সঙ্গে কথা বললে তিনি বলেন আমরা কি করব আমাদের কাছ থেকে প্রতিনিয়ত বালিয়াডাগী থেকে নেকমরদ পর্যন্ত যাতায়াত করলে একবারে ১০ টাকা নেই এদিকে পাগলু ড্রাইভার রানা বলেন আমাদের কাছ থেকে প্রতিদিন 200 টাকা করে চেন মাষ্টার ভাড়া নেয় ।আমরা এখানে না থাকলে কোথায় যাবে তারপরেও আমাদেরকে কোন নির্দিষ্ট একটি স্থান দেওয়া হচ্ছে না তার কারণে আমরা এই নেকমরদ চৌরাস্তায় গাড়িগুলো পারাপার করি ।

শাহজাহান নামে এক যাত্রী বলেন, যাত্রীর চাইতে গাড়ী বেশী একদিনও বালিয়াডাঙ্গী থেকে নেকমরদ বিকাল বেলা যাতায়াত করতে পারি না জ্যামের কারণে। নেকমরদ চৌরাস্তায় হাটে যাওয়ার রাস্তা টি থাকে কোন কোন দিন এমনো জ্যাম লেগে থাকে যে ৫ মিনিটের রাস্তা ১ ঘন্টা লাগে যায় । ব্যাটারি চালিত চার্জার ভ্যান চার্জার গাড়ি পাগলু অটোরিকশা ও ভ্যান মহা সড়কগুলোতে চলাচলে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা থাকলেও তা মানা হচ্ছেনা ।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায় যে নেকমরদ রানীশংকৈল বালিয়াডাঙ্গী মীরডাঙ্গী ড়কের পাশে সিরিয়াল ধরে অটোরিকশা পার্কিং করে রাখা হচ্ছে। এ বিষয়ে রানীশংকৈল থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল মান্নানের সঙ্গে মুঠো ফোনে কথা বললে তিনি বলেন এটি পরিকল্পিত করতে হবে ।

মাহাবুব আলম ঠাকুরগাঁও রানীশংকৈল প্রতিনিধি