নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে ২০ দিন পর নতুন করে আরও এক জন করোনা পজেটিভ।

জয়ন্ত রায়, কিশোরগঞ্জ(নীলফামারী)প্রতিনিধি: কিশোরগঞ্জে ২০ দিন পর নতুন করে আরও এক জন করোনা পজেটিভ রোগী শনাক্ত হয়েছে। তার গ্রামের বাড়ি উপজেলার মাগুড়া ইউনিয়নের উত্তরপাড়া গ্রামে। আক্রান্ত ব্যক্তি তারাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টেকনোলজিস্ট।

সূত্র জানায়- তারাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টেকনোলজিস্টসহ বেশ ক’জনের নমুনা সংগ্রহ করে রংপুর পিসিআর এ পাঠানো হয়। সোমবার রাতে উপজেলার মাগুড়া ইউনিয়নের বাসিন্দা ও তারাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টেকনোলজিস্ট’র করোনা পজেটিভ আসে।

পাশাপাশি একই দিনে আরও ২ জনের করোনা পজেটিভ এসেছে বলে জানা গেছে। তারা হল-ওই হাসপাতালের একজন এমটি ল্যাব টেকনোলজিস্ট ও অন্যজন তারাগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা। অপর আক্রান্ত এমটি ল্যাব টেকনোলজিস্ট’র বাড়ি সৈয়দপুর উপজেলায় বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে কিশোরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ আবু শফি মাহমুদের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান- তথ্যমতে করোনা পজেটিভ ৩ জনের এসেছে। এদের মধ্যে একজন এ উপজেলার মাগুড়া ইউনিয়নের উত্তরপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। ওই ব্যক্তি তারাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন এমটি ইপিআই টেকনোলজিস্ট। অপর দুইজনের মধ্যে একজন একই হাসপাতালের এমটি ল্যাব টেকনোলজিস্ট এবং অপর জন তারাগঞ্জের বাসিন্দা বলে জেনেছি। তিনি আরও জানান- তার সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের চিহিৃত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মাগুড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহমুদুল হোসেন শিহাব মিঞা জানান- ইউএনও স্যারের মাধ্যমে রাতে জানতে পেরে তাৎক্ষনিক আক্রান্ত ওই ব্যক্তির বাড়ি যেয়ে ওই বাড়ি ও পাশ্ববর্তী আরও তিনটি বাড়িসহ মোট ৪ টি বাড়ি লকডাউন করেছি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবুল কালাম আজাদ জানান- রাতে তারাগঞ্জ উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার মারফৎ জানতে পেরেছি তারাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টেকনোলজিস্ট করোনায় আক্রান্ত। তার গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জ উপজেলার মাগুড়া ইউনিয়নের উত্তরপাড়া গ্রামে।

মাগুড়া ইউপি চেয়ারম্যানকে বাড়িটি লকডাউন করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বলা হয়েছে। উল্লেখ্য যে- করোনায় আক্রান্ত প্রথম ব্যক্তি ছিল কিশোরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক। তিনি বর্তমানে সুস্থ্য।