নওগাঁ সাপাহারে ৭বছরের শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টার অপরাধে বৃদ্ধ আটক।

ছবি: আব্দুল ওয়াহেদ।

আবু বক্কার,সাপাহার(নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর সাপাহারে ৭ বছরের শিশুকে জোরপূর্বক ধর্ষণ চেষ্টার অপরাধে আব্দুল ওয়াহেদ (৫৭) নামে এক বৃদ্ধকে আটক করেছে থানা পুলিশ। এ ব্যাপারে সাপাহার থানায় একটি এজাহার দাখিল করা হয়েছে। এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ১৮ ফেব্রয়ারী মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার মিরাপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণীর ছাত্রী, ৭ বছরের শিশুকন্যা কে ধর্ষণ চেষ্টার অপরাধে আব্দুল ওয়াহেদকে আটক করে থানা পুলিশ।

উল্লেখ্য যে, গত ১১ ফেব্রয়ারী মঙ্গলবার দিবাগত সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে শিশুকন্যার পরিবারের সাথে আব্দুল ওয়াহেদের ভালো সম্পর্ক থাকার ফলে ওই শিশুকন্যাকে পাশ্ববর্তী আলীনগর মাদ্রাসায় জলসা শুনতে নিয়ে যাবে মর্মে তার মাকে বলে। এমতাবস্থায় শিশুকন্যাও জালসা শুনতে যাবে বলে বায়না ধরলে অগত্যাই তার মা ওই বৃদ্ধের সাথে জালসা শুনতে পাঠায়।

পরে ওই শিশুকন্যাকে নানান ধরণের খেলনা কিনে দেয় বৃদ্ধ। আসার পথে আরো নানাবিধ খেলনা কিনে দিবে বলে লোভ দেখায় শিশুকন্যাকে এবং কাপড় খুলতে বলে । খেলনা কিনে দেওয়ার প্রলোভনে ওই দুশ্চরিত্র বৃদ্ধ শিশু বাচ্চাকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালায় । খেলনার লোভে পড়ে বাচ্চাটিও বাড়ীতে কিছু না বলে চুপচাপ থেকে যায়। পরবর্তী সময়ে ওই বাচ্চা মেয়েটির শারিরীক সমস্যা দেখা দিলে বাড়ীতে তার মাকে বিষয়টি জানায়।

বাচ্চার মা ঘটনাটি জানতে পেরে ১৮ ফেব্রয়ারী মঙ্গলবার সকালে নওগাঁ সদর হাসপাতালে বাচ্চাটিকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়। ঘটনা জানতে পেরে ওই বিকৃত মানসিকতার লম্পট বৃদ্ধ ওয়াহেদকে আটক করে থানা পুলিশ।এ ব্যাপারে মেয়ের মা বাদী হয়ে স্থানীয় থানায় একটি এজাহার দাখিল করেছেন। এ ব্যাপারে সাপাহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল হাই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃত ওয়াহেদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে এবং আটককৃতের বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার মামলা দায়ের করা হয়েছে।