ধর্ষনের অভিযোগে আটক ইমাম

মোঃ আশিকুর রহমান রনি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার শ্রীরামপুরে ধর্ষনের অভিযোগে মসজিদের ইমামকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধর্ষিতা প্রবাসীর স্ত্রী,সে দুই মাসের অন্তঃসত্বা।

পুলিশ শুক্রবার সকালে শ্রীরামপুর গ্রামের আবুল ওলাইয়া খানকা শরীফের তত্বাবধায়ক ও ইমাম সিরাজুল ইসলাম (৫০) কে গ্রেফতার করে আদালতে সোর্পদ করেন। মাওলানা সিরাজুল ইসলাম ইসলাম শ্রীরামপুর পূর্বপাড়ার আবুল ওলাইয়া খানকা শরীফের তত্বাবধায়ক ও ইমাম হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে আছেন। এলাকায় বিভিন্ন রোগের তাবিজ কবজ ও ঝাঁড়ফুকের ব্যবসা করেন। গত ১২ই অক্টোবর পারশ্ববর্তী ভোলাচং গ্রামের প্রবাসী সাদ্দাম হোসেনের স্ত্রী তার দুই কন্যার জননী সন্তান বিছানায় প্রস্রাব করে এই জন্য ইমামের কাছে গেলে ইমাম তাবিজ দেওয়ার জন্য তার খানকার ৩য় তলায় নিয়ে যাওয়ার পর জোরপূর্বক ধর্ষন করে।

লজ্জা ও ইমামের তাবিজ কবজের ভয়ে এতদিন একথা কাউকে বলেনি। কিন্তু এখন সে দুই মাসের অন্তঃসত্বা হয়েগেলে বিষয়টি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় ভাবে মিমাংসা না হওয়াতে ধর্ষিতা নারী নবীনগর থানায় নবীনগর থানায় আশ্রয় নিয়ে মামলা করে। এব্যাপারে ওসি আমিনুর রশিদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,মামলার পর আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সে ধর্ষণের করা স্বীকার করেছে।