দৌলতপুরে সরকারি বই বিতরণ করে স্কুল কর্তৃপক্ষ বাগিয়ে নিচ্ছেন শিক্ষার্থী প্রতি ৫শ’ টাকা

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে লালনগর আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়।

দৌলতপুর প্রতিনিধি: সরকারি বই বিতরণ করে স্কুল কর্তৃপক্ষ বাগিয়ে নিচ্ছেন শিক্ষার্থী প্রতি ৫শ’ টাকা। এর আগে অ্যাসাইনমেন্ট জমা নিতেও টাকা নিয়েছেন তারা। টাকা ছাড়া বই না দিয়ে ফিরিয়ে দেয়া হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। এমন অভিযোগ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে লালনগর আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে নতুন বই নিতে যাওয়া শিক্ষার্থীদের। শিক্ষার্থীরা জানায়, পুরাতন বই এবং ৫শ’ করে নগদ টাকা নিয়ে দেয়া হচ্ছে নতুন বই। আর এই টাকা স্কুল কর্তৃপক্ষ চাচ্ছেন বই বাবদ। পরিচয় প্রকাশে অনিচ্ছুক দু’জন শিক্ষার্থী জানায় বাধ্য হয়ে নগদ টাকা দিয়েই তাদের বই নিতে হয়েছে।

তবে, এসব অভিযোগ অস্বীকার করে শাক দিয়ে মাছ ঢাকার চেষ্টা করেন বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক শফিউল আজম। তিনি বলেন, টাকা স্কুলের সেশন চার্জ হিসাবে নেয়া হচ্ছে। কিন্তু টাকা নিলেও কেন শিক্ষার্থীদের রশিদ দেয়া হয়নি সেবিষয়ে সন্তোষজনক উত্তর দিতে পারেননি তিনি। বরং কোন শিক্ষার্থীই টাকা নেয়ার অভিযোগ সাহস করে বলতে পারবেনা বলে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়েন তিনি। যদিও ততক্ষণে সরাসরি অভিযোগকারী শিক্ষার্থীর সংখ্যা একশো প্রায়।

অভিভাবকদের অভিযোগ, স্কুলটি কেন্দ্র করে ব্যবসা খুলে বসেছেন স্কুল কর্তৃপক্ষ। স্কুল বন্ধ থাকলেও ক’দিন আগে অ্যাসাইনমেন্টের কথা বলে ৫শ’ টাকা নিয়েছেন এবং এখন বই দেয়ার কথা বলে আবারও ৫শ’ টাকা দাবি করছেন। শিগগিরই তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সরদার মোহাম্মদ আবু সালেক। তিনি বলেন, নতুন বই বিতরণের বিপরীতে কোন টাকা আদায় করা অপরাধ। বিদ্যালয়টিতে প্রায় ৫শ’ শিক্ষার্থী পড়ালেখা করে বলে জানা গেছে।