দশমিনা উপজেলায় ঘূর্নিঝড় বুলবুল মোকাবেলার সর্বোচ্চ ব্যবস্থা গ্রহন।


দশমিনা(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি: পটুয়াখালী জেলার দশমিনা উপজেলার ঘূর্নিঝড় বুলবুল মোকাবেলায় দশমিনা উপজেলা প্রশাসন সর্বোচ্চ ব্যবস্থা গ্রহন করেছে।যেহেতু পটুয়াখালী জেলায় ১০নং মহাবিপদ সংকেত দেখিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর তাই দশমিনা উপজেলা প্রশাসন গতকাল অর্থাৎ ০৮নভেম্বর বিকেল ৩.০০ ঘটিকায় সময় জরুরীসভার আয়োজন করেন।

উক্ত সভায় দশমিনা উপজেলার সকল ইউনিয়ন চেয়ারম্যান,ইউপি সদস্য,সিপিপি সদস্য,আনসার, গ্রাম পুলিশ, সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ,সাংবাদিক,ফায়ার সার্ভিস,নৌ-পুলিশ দের ঘূর্নিঝড় বুলবুল মোকাবেলায় নিজ নিজ এলাকায় জনসাধানরকে  স্থানীয় ঘূর্নিঝড় আশ্রয় কেন্দ্রে নেয়ার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন। দশমিনা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শুভ্রা দাস অদ্য দিন ০৯ নেভেম্বর বিকেল ৪ ঘটিকার সময় উপকূলীয় এলাকা ঢনঢনিয়া,হাজিরহাট, গোলখালী, কাটাখালী, সৈয়দজাফর,আউলি য়াপুর এলাকা পরিদর্শন করেন।

উপকূলীয় এলাকার সকল জনসাধারনকে আশ্রয়কেন্দ্রে যাওয়ার জন্য নির্দেশ দেন। সন্ধ্যা০৭ ঘটিকার  সময় হাজিরহাট ,গোলখালী,কাটাখালী এলাকায় গিয়ে দেখাযায় নুরুল হক হাওলাদার এর নেতৃত্বে সিপিপি সদস্যের একটি টিম ও নৌ-পুলিশের এসআই উত্তম এর নেতৃত্বে একটি টিম জনসাধারনকে আশ্রয় কেন্দ্রে নেয়ার কাজ করছে এবং শুকনা খাবার বিতরন করছে।

দশমিনা উপজেলা নির্বাহী আফিসার শুভ্রা দাস বলেন ঘূর্নিঝড় বুলবুল মোকাবেলায় সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন জনগনের জানমাল রক্ষায় সর্বোচ্চ চেস্টা অব্যহত থাকবে। দশমিনা থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম কিছুক্ষন পরপর দশমিনা উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় সাইলেন্ট বাজিয়ে জনসাধারনকে শতর্ক বার্তা দিচ্ছে।