দশমিনায় ধানের বীজ রোপা নিয়ে সংঘর্ষ আহত ৭

দশমিনা(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি: পটুয়াখালী জেলার দশমিনা উপজেলায় ০৩ সেপ্টেম্বর রোজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১ ঘটিকার সময় পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলার বহরমপুর ইউনিয়নের আদমপুর গ্রামে পৈত্রিক সম্পত্তিতে ধান রোপা নিয়ে বিরোধের রক্তক্ষয়ি সংগর্ষেও ঘটনা ঘটে। ঘটনার বিবরনে প্রকাশ,দক্ষিন আদমপুর ইউনিয়নের ওয়াহেদ বিশ্বাসের মৃত্যুতে বৈধ ওয়ারিশ থাকে এক পুত্র মোসলেম বিশ্বাস এবং ৫ কন্যা।

এলাকাবাসী সুত্রে জানাযায়, প্রথম দিকে মৃত্যু ওয়াহেদ বিশ্বাসের কোন পুত্র সন্তান না থাকায় আবদুস ছালামকে পালিত পুত্র হিসেবে লালন পালন করেন ওয়াহেদ। অতপর ঐ পরিবারে মোসলেম বিশ্বাসের জন্ম হলে এবং ওহায়েদ বিশ্বাসের জীবদ্দশায় পালিত পুত্র ছালামকে কোন রকম কোন জমি জমা লিখে না দেয়ায়, ছালাম বাড়ী থেকে চলে যায় এবং দীর্ঘ বছর তার কোন খোজ খবর না থাকায় ওয়াহেদের একমাত্র পুত্র মোঃ মোছলেম বিশ্বাস এবং বোনেরা পৈত্রিক সম্পত্তি সমভাবে ভোগ দখল করে আসছিল।

দীর্ঘ দিন পর এলাকার কতিপয় প্রভাবশালী মহলের উসকানীতে আঃ ছালাম মৃত্যু ওয়হিদের পুত্র দাবী করে জমির ভোগ দখল নিতে গেলে অদ্যদিন এক রক্তক্ষয়ি সংঘর্ষে রুপ নেয় বলে জানান গুরুতর আহত নাসরিনের মেয়ে রেখা বেগম এবং ছেলে মোঃ আরিফ হোসেন। অতপর আরিফ ৯৯৯ এ ফোনের সহায়তায় দশমিান থানা পুলিশ এস আই আবদুর রহিমের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ফোর্স দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে দশমিনা হাসপাতালে প্রেরন করেন এবং ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

আহতরা সকলেই দশমিনা উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। দশমিনা উপজেলা মেডিক্যাল অফিসার ডা.অহিদুল ইসলাম শিফাত জানান, মোসাঃনাসরিন গুরুত্বর অসুস্থ্য তাকে দ্রুত বরিশাল উন্নত চিকিৎসার দরকার এবং মুক্তা ৪ মাসের সন্তান সম্ভাবনা আলট্র্যাসনোগ্রাম করতে বলেছি রিপোর্ট হাতে না পেলে কিছুই বলা যাবেনা। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত উভয় পক্ষ্যে মামলার প্রস্তুতি চলছিল বলে জানান পক্ষদ্বয় ।