দশমিনায় জনদুর্ভোগে প্রায় ৪শত ছাত্রী।

দশমিনা(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি: পটুয়াখালী জেলার দশমিনা উপজেলা ৭টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। দশমিনা উপজেলায় একমাত্র নারী বিদ্যাপীঠ ডাঃডলি আকবর মহিলা কলেজ। দশমিনা উপজেলার নারী শিক্ষাকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য ২০০৯ ইং সনে ডাঃআলী আকবর কলেজটি প্রতিষ্ঠিত করেন। কলেজটি এমপিও ভুক্ত না হলেও শত প্রতিকূলতার মধ্যে কলেজটির নিজ অর্থায়নে আজও সরকারি বিধিবিধান বাস্তনায়ন করে নারী শিক্ষার মান উন্নয়নে সচেষ্ট।

কলেজটি প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে দশমিনা উপজেলা প্রশাসনের যৎসামান্য অনুদানে কলেজের পাঠদান শ্রেনি কক্ষ এবং রাস্তা সংস্কার করার কাজ হলেও দীর্ঘদিন পর্যন্ত ডিসি রাস্তা থেকে কলেজ রাস্তাটির বেহাল দশা। কলেজ কর্তৃপক্ষ কলেজের পাঠদান সংস্কার সহ অভ্যন্তরিন কাজ করে রাস্তা সংস্কার কোন মতেই সম্ভব হয়নি।

কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাস সময় কালীন কলেজ বন্ধ থাকায় শ্রেণি কক্ষের পাঠদান বন্ধ থাকায় শিক্ষক কর্মচারীদের এবং ছাত্রীদের ছিলোনা আসা-যাওয়া। বর্তমানে ডিসি রাস্তা থেকে কলেজ রাস্তা পর্যন্ত রাস্তাটির বেহালদশা। তাই রাস্তাটি নির্মান জরুরী। ডিসি রাস্তা থেকে কলেজ রাস্তাটি পূর্ননির্মান করা না হলে ছাত্রীদের চলাচলে ঘটতে পারে বড় ধরনের দূর্ঘটনা।

ডিসি রাস্তা থেকে কলেজ পর্যন্ত রাস্তাটি স্হানীয় জনসাধারন,ছাত্রীদের অভিভাবক,ছাত্রী, কলেজ পরিচালনা পর্ষদ,শিক্ষক,কর্মচারীদের প্রানের দাবী ডিসি রাস্তা থেকে কলেজ পর্যন্ত রাস্তাটি চলাচলের জন্য পূর্নঃনির্মান করা প্রানের দাবী। বর্তমানে ডিসি রাস্তা থেকে কলেজ পর্যন্ত রাস্তাটি বেহালদশা তাই রাস্তাটি নির্মান জরুরী।

কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ডাঃআলী আকবর বলেন, ডিসি রাস্তা থেকে কলেজ রাস্তাটি বর্তমানে কলেজ কর্তৃপক্ষ এবং এলাকার জনগনের চলাচলের জন্য দূর্ভোগের। তাই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ করবো ডিসি রাস্ত থেকে কলেজ রাস্তাটি দ্রুত কার্পেটিং করা হলে ছাত্রীদের কলেজে আসা-যাওয়ায় দূর্ভোগে পড়তে হবেনা।