তৃণমূল ও সাধারণ মানুষের পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছেন যুবলীগ নেতা শাকিলুর রহমান বিটু।


নিজস্ব প্রতিনিধি: তৃণমূলের নেতাকর্মীদের প্রাধান্য দিয়ে সাধারণ মানুষ ও সুবিধাবঞ্চিতদের পাশে থেকে রাজনীতি করছেন মিরপুর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাকিলুর রহমান বিটু। ছাত্রলীগের একসময়ের মাঠ কাপানো নেতা শাকিলুর রহমান বিটু আজ মিরপুর উপজেলা জুড়ে সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে একটা আস্থার জায়গায় পরিণত হয়েছেন। যিনি রাতদিন সব সময় মানুষের পাশে থেকে মানুষের উপকার করে গিয়েছেন, ছুটে গিয়েছেন একদম গ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চলে সুবিধাবঞ্চিত মানুষের খোঁজ নিতে,।

আমরা বেশিরভাগ সময়ই দেখতে পাই কোন রাজনৈতিক নেতা চলাফেরা করে বিলাসবহুল ভাবে, তবে মিরপুর উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাকিলুর রহমান বিটুর কথা একদম ভিন্ন তিনি সাধারণ মানুষের পাশে থেকে রাজনীতি করে যাচ্ছেন। একজন যুবলীগের নেতা হিসেবে সবসময়ের ছুটে বেড়ান মিরপুর উপজেলার এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্ত, প্রায় প্রতিদিনই মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তিরত রোগীদের সার্বিক খোঁজখবর নিন আবার মাঝে মাঝে এই তীব্র শীত উপেক্ষা করে চলে যান মাঠে কাজ করা এবং ইট ভাটায় কাজ করা শ্রমিকদের কাছে।

এছাড়া এলাকাভিত্তিক দ্বন্দ্ব-কলহ এবং যেকোনো সমস্যা সমাধানে অত্যন্ত সূক্ষ্মভাবে সমাধান করেন যুবলীগ নেতা শাকিলুর রহমান বিটু। তার মধ্যে কখনো কোন অহংকার, বিলাসিতা, হিংসা লক্ষ করা যায়নি। তৃণমূল পর্যায়ে সাধারণ মানুষের পাশে থাকার জন্য ইতিমধ্যেই মিরপুর উপজেলা তথ্য কুষ্টিয়ার একটি প্রিয় মুখ পরিণত হয়েছেন তিনি। এছাড়া রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক মহলে সরব উপস্থিতিতে এক নামেই শাকিলুর রহমান বিটু কে সবাই চিনে। তারমধ্যে বেশ কিছুক্ষণ গুণ রয়েছে যেমন ছোটদের স্নেহ করে চলা এবং বড়দের সম্মান প্রদর্শন করে চলা, আর এইজন্যই সর্বমহলে লোকজন তাকে সম্মান দিয়ে চলেন।

এ বিষয়ে মিরপুর উপজেলার এক বয়স্ক ব্যক্তির সাথে কথা হলে তিনি বলেন একটি রাজনৈতিক ব্যক্তি আমরা যেমনটা চাই ঠিক তেমনটাই আমাদের শাকিলুর রহমান বিটু, আমি তার জন্য সার্বিক দোয়া করি সে যেন রাজনৈতিক ও সামাজিক মহলে আরো উপরে উঠতে পারে। এ বিষয়ে মিরপুর উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাকিল রহমান বিটু প্রথমেই বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের নবনির্বাচিত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক কে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে বলেন আমার সবসময় তৃণমূলকে সুসংগঠিত করে এবং সাধারণ মানুষের পাশে থেকে কাজ করতে ভালো লাগে। আসলে একটি রাজনৈতিক নেতার কাছে মানুষের সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা অনেক বেশি থাকে আমি জানিনা তাদের প্রত্যাশা কতটুক পূরণ করতে পেরেছি তবে আমি সব সময় মানুষের পাশে থেকে কাজ করতে চাই।

বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে ও আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের যে বাণী ক্লিন ইমেজের যুবলীগ প্রতিষ্ঠিত করার জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করব। এছাড়া বর্তমান সময়ে যুবসমাজ বিভিন্ন মাদক সহ বিভিন্ন অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে তাই আমি এদের একত্রিত করে ভালো কিছু করতে চাই।

উল্লেখ্য শাকিলুর রহমান বিটু মিরপুর উপজেলার বারুইপাড়া ইউনিয়ন এর চুনিয়াপাড়ায় বাড়ি। সে বারুইপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সেলিম আহমেদ ও আরিফা খাতুন এর একমাত্র ছেলে। বেক্তি জিবনে তিনি স্ত্রী ও এক কন্যা সন্তান নিয়ে সপরিবারে বসবাস করছেন।