তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে পিটিয়ে জখম;দোষ ঢাকতে থানায় মিথ্যা অভিযোগ।

বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেনের ছেলে মোহন আলীর উপর অতর্কিত হামলা

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার আদাবাড়িয়া ইউনিয়নের,আদাবাড়িয়া মালিথা পাড়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত বুধবার বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেনের ছেলে মোহন আলীর উপর অতর্কিত হামলা চালায় রশিদুল ইসলাম সহ তার বাহিনী । এ বিষয়ে অনুসন্ধানে গেলে এলাকাবাসী জানান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেনের ছেলে মোহন আলী ছোট বাচ্চা মেয়ে, এবং নুর বাকসোর ছেলে রশিদুলের ছোট ছেলে পুকুরে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে বাকবিতন্ডা হয়।

বিষয়টি স্থানীয়ভাবে সমাধান হলেও কিছু সময় পরেই রশিদুল ইসলাম তার দলবল নিয়ে মোহন আলীর বাড়ি আক্রমণ করে, এবং রশিদুল ইসলাম অভিনব কায়দায় মোহন আলীর হাত কেটে দেয় , বর্তমানে মোহন আলী কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি আছেন। মোহন আলীর বংশের লোকজন রশিদুল বাড়ীতে যাওয়ার আগেই নিজের দোষ ঢাকতে রশিদুল নিজের লোকজন নিয়ে নিজের বাড়ীঘর ভাঙচুর করে।

এ ব্যাপারে এলাকাবাসী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন রশিদুল ইসলাম অন্যায় ভাবে মোহনকে জখম করে, আহত মোহনের চাচাতো ভাই উজিরের ছেলে নান্টু ও ছাত্তারের ছেলে তৌহিদ জখম হওয়া মোহনকে দেখতে আসলে রশিদুল ইসলাম তাদের নিজেদের ঘরবাড়ি ভাঙচুর করে এবং নিজে বাঁচার জন্য থানায় একটি মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করেন।

এলাকাবাসী রসিদুলের করা মিথ্যা অভিযোগের সুষ্ঠু তদন্ত করার জন্য প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। এ ব্যাপারে দৌলতপুর থানার ওসি তদন্ত নিশিকান্ত জানান, কোন নির্দোষ ব্যক্তি যাতে অযথা হয়রানি না হয় সেটা আমরা অবশ্যই দেখবো। এবং এই বিষয়টি সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।