কোন প্রকার প্রচারনা ছাড়াই নিজস্ব অর্থায়নে দিয়ে যাচ্ছেন হাজারো অনুদান, চেয়ারম্যান আবু সাইদ

গোলাম কিবরিয়া পলাশ, ময়মনসিংহ জেলা প্রতিনিধি: শেখ হাসিনার বাংলাদেশ খোদা হবে নিরুদ্দেশ। এই শ্লোগান নিয়ে মাঠে কাজ করে যাচ্ছেন ময়মনসিংহ সদর উপজেলার সিরতা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবু সাইদ। নিরলস ভাবে কোন প্রকার প্রচারনা ছাড়াই নিজস্ব অর্থায়নে সিরতা ইউনিয়নের অসহায়, গরীব, এতিম, হত দরিদ্র, বিধবা, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধীদের মাঝে বিতরণ করেছেন ত্রান সামগ্রী।

উনার সাথে কথা বলে বুঝা যায়, উনি বলেন এক হাতে দান করলে অন্য হাত যেন টের না পায়। তাই আমি কোন প্রকার প্রচারনা করতে রাজি নই। নির্দিষ্ট সুত্রে জানতে পারি, শুধু “করোনা ভাইরাস” এর সংকটকালীন মুহূর্তে নয় উনি চেয়ারম্যান হওয়ার পূর্ব থেকেই জনগনের বিভিন্নভাবে ত্রাণ সামগ্রী, খাদ্য দ্রব্যসহ নগদ অর্থ বিতরণ করে আসছেন। যিনি জনপ্রিয়তা ও যোগ্যতার বলে আজ চেয়ারম্যান এসোসিয়েশনের সভাপতি। যার কর্মদক্ষতা ও প্রচেষ্টার দরুন সিরতা ইউনিয়ন আজ ডিজিটাল ইউনিয়নে উন্নতি হয়েছে। হয়েছে সিরতা ইউনিয়নের রাস্তা গুলি পাকা।

রাস্তা রাস্তায় কালবার্ড ব্রীজ সহ অনেক উন্নয়ন। দিয়েছেন অনেক বেকার ছেলে মেয়েদের চাকুরির ব্যবস্থা। নিজ উদ্যোগে অনেক ত্রাণ সমগ্রী ছাড়াও নগদ অর্থ দিয়ে সহযোগিতা করেছেন সিরতা ইউনিয়নের হত দরিদ্র অসহায় সাধারণ খেটে খাওয়া প্রায় সাত থেকে আট হাজার মানুষজনের পরিবারে। দিয়েছেন মসজিদ মাদরাসা সহ স্কুল বিদ্যালয়ে হাজারও অনুদান। নিরলস ভাবে ক্লান্তিহীন চেষ্টায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উপহার সামগ্রী তুলে দিচ্ছেন অসহায় মানুষজনের পরিবারে।

শুধু পরিবার নয় সিরতা ইউনিয়নের জনগণের সুখ-দুঃখের সংবাদ খুঁজ খবর নিয়াই হলো আমার আদর্শ। তাই আমার জনপ্রিয়তা বেশী হওয়ায় হাজার বাঁধা বিপত্তির পরও আমি নৌকা প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়ে আজ জনগণের সেবা করতে পারছি। চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আবু সাঈদ সাহেব বলেন যতই ষড়যন্ত্র হোক আমি জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আপামর জনসাধারণের ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করে যাবো। মানবতার নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সিরতা ইউনিয়নকে একটি আদর্শ ইউনিয়নে পরিনত করবো ইনশাআল্লাহ।

যিনি সিরতা ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের মেম্বার ও তিনটি মহিলা মেম্বারদের নিয়ে প্রতিনিয়ত মিটিং করে প্রতিটি মুহুর্তে ওয়ার্ড গুলির খুঁজ খবর নিয়ে থাকেন। শুধু দিনে নয় রাতের আঁধারেও চলছে উনার ত্রাণ বিতরণ কর্মসূচি। বর্তমান পরিস্থিতিতে সিরতা ইউনিয়নবাসীকে সামাজিক দূরত্ব ও জনসচেতনতার জন্য বিভিন্ন বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য পরামর্শ দিচ্ছেন। হাট বাজারসহ রাস্তার মোড়ে মোড়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য যথেষ্ট প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

আজ সিরতা ইউনিয়নবাসী উনাকে মানবতার মহা মানব হিসেবে ভূষিত করছেন। উনার দ্বারায় আজ সিরতা ইউনিয়নবাসী সঠিক উন্নয়নশীল একটা পথ খুঁজে পেয়েছে, পেয়েছে নতুন ঠিকানা। উনার কাছে সিরতা ইউনিয়নবাসী পাচ্ছে সর্বক্ষণ সঠিক পরামর্শ ও সহযোগিতা। উনাকে মনে রাখবে আজীবন সিরতা ইউনিয়নবাসী। উনার জন্য রয়েছে মনের ভিতর সর্ণক্ষর দিয়ে সম্মাননা।