করোনা শুরু থেকে যারা “আলোর মিছিল”এর সাথে আছেন সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান- শুভ্র।

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে কাজ করে চলেছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘আলোর মিছিল’। স্থানীয় এমপি সরওয়ার জাহান বাদশাহর বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছেলে শাইখ আল জাহান শুভ্র দেশে করোনা প্রাদুর্ভাবের শুরুতেই সংগঠনটি আহ্বান করেন। উপজেলার ছাত্র নেতা-প্রাক্তন ছাত্র নেতা,রাজনীতিক,সাংবাদিক,শিক্ষক, সমাজকর্মী,সংগঠকসহ নানা শ্রেণী পেশার মানুষের সমন্বয়ে গঠিত ‘আলোর মিছিল’ ইতোমধ্যে দৌলতপুরের ১৪টি ইউনিয়নেই কাজ করছে।

করোনা পরিস্থিতিতে অন্যান্য সকল সেবামূলক কাজের পাশাপাশি উপজেলার মানুষকে স্বেচ্ছাসেবা দানকারী সংগঠনগুলোর অনুপ্রেরণা এবং ঝুঁকিমুক্ত ভাবে কাজ পরিচালনা করা নিশ্চিত করতে কাজ করছে সংগঠনটি। ভার্চুয়াল মাধ্যমে সচেতনতা বাড়ানোর পাশাপাশি উপজেলার সর্বত্র সবশেষ তথ্য জানিয়ে মাইকিং ও লিফলেট বিতরণ কার্যক্রম নিয়মিত পরিচালনা করছে আলোর মিছিল।

আহ্বায়ক শুভ্র জানান, আমরা সরকারি চিকিৎসকদের দ্বারা করোনা পরিস্থিতিতে কাজ করার একটি বিশেষ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কার্যক্রম শুরু করি,দৌলতপুরের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সাথেও কথা বলেছি। প্রশাসনের সাথে সমন্বয় রেখে ঝুঁকি এড়িয়ে কাজ করে যাওয়ার চেষ্টা করছি। দৌলতপুরের ১৪ টি ইউনিয়নেই আলোর মিছিলের কর্মীরা সেবক হিসাবে নিয়মিত কাজ করছেন।

পরিস্থিতি ও আমাদের সক্ষমতায় মিলে গেলে ত্রাণ কার্যক্রম শুরু করা হবে। যদিও বিচ্ছিন্ন ভাবে আমরা অসহায়দের আর্থিক ও খাদ্য সহায়তা দিচ্ছি। দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে স্বেচ্ছাসেবীদের ঝুঁকি এড়িয়ে খুবই সাবধানে কাজ করতে আহ্বান জানান সংগঠনটির নীতিনির্ধারকেরা। সংগঠনটির সার্বিক তত্বাবধানে ও প্রধান পৃষ্ঠপোষকতায় কাজ করছেন এমপি সরওয়ার জাহান বাদশাহ। এগিয়ে এসেছেন উপজেলার সর্বস্তরের মানুষ। করোনা মোকবেলায় শত ব্যাস্ততা-প্রতিকূলতার মধ্যেও যারা আলোর মিছিলের সাথে আছেন সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান শাইখ আল জাহান শুভ্র।