করোনা পরিস্থিতি ব্রাহ্মণবাড়িয়া আক্রান্ত ৭, মৃতঃ ১জন, উপসর্গে মারা গেছে ২জন


আশিকুর রহমান রনি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনা উপসর্গ নিয়ে দুই নারীর মৃত্যু হয়েছে। টানা ১০ দিন জ্বর, কফ ও শ্বাস কষ্টের সাথে লড়াই করে শহরের কাউতলীর মুনা বেগম (৩৫) মারা গেছে। শনিবার সকাল ৭টায় নিজ বাসায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। তার স্বামী বশির আহমেদ জানান, গত ৩১ মার্চ প্রচন্ড জ্বর নিয়ে সে ব্রাক্ষনবাড়িয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়। সে সময় তাকে ঢাকায় প্রেরন করে কর্তব্যরত চিকিৎসক। সে ঢাকা যেতে না চাওয়ায় বাড়িতেই চিকিৎসা চলতে থাকে।

তার জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্ট ছিল। খবর পেয়ে ডাক্তার সাখাওয়াত হোসেন এর নেতৃত্ব একটি মেডিকেল টিম তার বাড়িতে গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করে। জেলার সিভিল সার্জন জানান, করোনা রোগীকে যে ভাবে দাফন কাফন করা হয়েছে তাকে। অন্যদিকে, জেলার নবীনগর উপজেলায় জ্বর ও সর্দি কাশি নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা ইব্রাহিমপুর গ্রামের জাহানারা (৮০) মারা গেছে। সে ঐ গ্রামের ফুল মিয়ার স্ত্রী।

তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। সিভিল সার্জন অফিস জানায়, ব্রাক্ষনবাড়িয়া জেলায় ৭জন করোনায় আক্রান্ত রোগীকে সনাক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে আখাউড়ায় ৩জন নারী, বিজয়নগরে ২জন পুরুষ, নবীনগরে ১জন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদরে ১জন করোনা সনাক্ত করা হয়েছে। সিভিল সার্জন ডাঃ একরাম উল্লাহ বলেন, তাদের নমুনা পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছিল, রিপোর্টে পজেটিভ এসেছে।