আখাউড়া উপজেলা প্রেসক্লাবে ফের সভাপতি মিশু সম্পাদক সফিক


আশিকুর রহামন রনি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলা প্রেসক্লাবের নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে। শনিবার বেলা ১১টায় পৌরশহরের সড়কবাজারে আখাউড়া উপজেলা প্রেসক্লাবের অস্থায়ী কার্যালয়ে এক সভায় তিন বছরের জন্য ৯ সদস্যবিশিষ্ট এ কমিটি গঠন করা হয়। আখাউড়া উপজেলা প্রেসক্লাবের নবগঠিত কমিটির সভাপতি হলেন মো. মহিউদ্দিন মিশু, সাধারণ স¤পাদক সফিকুল ইসলাম খান।

এদিকে আখাউড়া উপজেলা প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি কবি আফজাল খান শিমুল ও সাধারন সম্পাদক সফিকুল ইসলাম খান স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে জানান, আখাউড়া উপজেলা প্রেসক্লাবের বর্তমান সভাপতি মহিউদ্দিন মিশুর বিরুদ্ধে একই নামে আরও একটি প্রেসক্লাব গঠন করে একটি ষড়যন্ত্রকারী কুচক্রীমহল। বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়, মহিউদ্দিন মিশুর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক ভিত্তিহীন ও অযাচিত কাল্পনিক অভিযোগ তুলে তার মানহানি করছে।

যা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। একজন সত্য ও বস্তুনিষ্ঠ নির্ভীক সাংবাদিক মহিউদ্দিন মিশু বরাবরের মতো অনিয়ম ও দূর্নীতির বিরুদ্ধে অবস্থান। তার কলম বন্ধ করার অসৎ উদ্দেশ্যে চক্রান্তকারীরা দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। বিবৃতিতে আরও উল্লেখ করা হয়, ষড়যন্ত্রকারীরা কবি আফজাল খান শিমুলের সভাপতিত্বে যে সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে মর্মে প্রচারণা চালাচ্ছে তা সম্পূর্ণ অসত্য ও সর্ববই মিথ্যা। শিমুল বলেন, ওই সভার সভাপতি হিসাবে আমি দায়িত্ব পালন তো দূরের কথা আমি স্বশরীরে উপস্থিতই ছিলাম না।

তিনি বিবৃতিতে উল্লেখ করেন, আখাউড়া উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক কে অবহিত না করে বিধিবহির্ভূত সভা ডাকা সম্পূর্ণ অবৈধ। সুতুরাং উপজেলা প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি কবি আফজাল খান শিমুল ও সাধারন সম্পাদক সফিকুল ইসলাম খান ষড়যন্ত্রকারীদের সংগঠন বিরোধী এহেন কর্মকান্ডের তীব্র ক্ষোভ, নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।